Home অপরাধ অপহরণের ১৩ দিন পর পাহাড়ে মিলল যুবকের হাত বাঁধা লাশ

অপহরণের ১৩ দিন পর পাহাড়ে মিলল যুবকের হাত বাঁধা লাশ

36

ডেক্স রিপোর্ট: অপহরণের ১৩ দিন পর খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার দুর্গম হিলছড়ি এলাকা থেকে আলো প্রদীপ ত্রিপুরা (৩৭) নামে এ যুবকের হাত বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে হিলছড়ি কালাপাহাড় নামক স্থানে মাটির নিচে পুঁতে রাখা অবস্থায় মরদেহটি পাওয়া যায়।

নিহত আলো প্রদীপ ত্রিপুরা হিলছড়ি এলাকার সতীশ কুমার ত্রিপুরার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গেল বছরের ৩০ ডিসেম্বর স্থানীয় তুলারাম ত্রিপুরার ভাগনি জামাইকে বান মারার সন্দেহে আলো প্রদীপ ত্রিপুরাকে অপহরণ করে তুলারাম ত্রিপুরাসহ কয়েকজন। অপহরণের পর থেকেই তাকে উদ্ধারে সেনাবাহিনী ও পুলিশ একাধিক অভিযান পরিচালনা করে। এলাকাবাসীর সহযোগিতায় অপহরণের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার সন্দেহে গত ১ জানুয়ারি নারায়ণ সেন ত্রিপুরা, মুজি কুমার ত্রিপুরা ও চাকতে কুমার ত্রিপুরা নামে তিনজন আটক করা হয়।

আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদেরকে আদালতে পাঠানো হলে আদালত তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করে। এ সময় আসামিদের একদিনের রিমান্ডে নিয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে জানান মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শাহনুর আলম। এ ঘটনায় অপহৃতের ছোট ভাই খোকন ত্রিপুরা (২১) বাদী হয়ে সন্দেহভাজন ১১ জনের নামে মাটিরাঙ্গা থানায় মামলা করেন।

মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শামসুদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, স্থানীয়দের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে দুর্গম পাহাড় থেকে আলো প্রদীপ ত্রিপুরার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।আরো পড়ুন